1. jubayer.jay@gmail.com : jubayer Ahmed : jubayer Ahmed
  2. admin@sylhetmail24.com : jubayer :
  3. shahabuddin1234@gmail.com : shuhebkhan :
  4. unoskhanrukon@gmail.com : unoskhan :
বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ০১:০৩ পূর্বাহ্ন

খোয়াই নদী দখলমুক্ত করে বিনোদন পার্ক গড়ার দাবী এলাকাবাসীর

  • প্রকাশিত হয়েছে: শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪০ বার পড়া হয়েছে

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ চুনারুঘাটের মরা খোয়াই নদীটি দখলমুক্ত করে বিনোদন পার্ক গড়ার দাবী ক্রমেই জড়ালো হচ্ছে। হবিগঞ্জ-৪ সংসদীয় আসনের এমপি মাহবুব আলী পর্যটন মন্ত্রনালয়ের দায়িত্বে আসার পর এ দাবী সর্বমহল থেকে হচ্ছে উচ্চারিত। এলাকায় সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের দাবী, নদীটিকে দখলমুক্ত করে-এখানে একটি পর্যটন স্পট তৈরী করলে সরকার যেমন রাজস্ব পাবে তেমনি ভ্রমন পিপাসু মানুষের বিনোদনেরও একটা ক্ষেত্র তৈরী হবে।
জেলার চুনারুঘাট উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে গেছে এক সময়ের খরস্রোতা খোয়াই নদী। নদীটি ভারত থেকে প্রবাহিত। এরশাদ সরকারের আমলে এই নদী চুনারুঘাট পৌর শহরের তিনশত গজ পূর্বে পাকুরিয়া নামক স্থানে খনন করে নিয়ে যাওয়া হয়। ফলে নদীর পূর্বের অংশ মরা নদীতে পরিণত হয়।
অবৈধ দখলের কারণে বিলীন হতে চলছে এ নদীটি। যে যার মতো দখল করে নিচ্ছে। উপজেলার বড়াইল, পশ্চিম পাকুড়িয়া, গুচ্ছগ্রামসহ চুনারুঘাট সদরের মরা খোয়াই নদীর আশপাশের বাসিন্দা ও উপজেলার বিভিন্ন স্থানের প্রভাবশালীরা এসে নদীতে মাটি ভরাট করে অবৈধ ভাবে স্থাপনা ও দোকানপাট নির্মাণ করছেন। নদী ভরাটে সহযোগিতা করছেন রাজনৈতিক নেতারাও। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় কয়েকজন জানান, মরা খোয়াই নদীর দুই তীরের পৌরশহরের অংশ দখল নিয়ে কিছু লোক অবৈধ স্থাপনা ও দোকান নির্মাণ করেছে। বছরের পর বছর ধরে তারা এসব জমি দখল করে রেখেছে। অনেকেই আবার এসব জমি অবৈধভাবে বেচাকেনা করছে এবং দখল করে দোকানপাট নির্মান করে ভাড়া দিচ্ছে। শুষ্ক মৌসুমেই বেড়ে যায় নদী দখলের প্রবণতা। এই সময়ে মরা নদীতে জল থাকে না। দখলদারকের বিরুদ্ধে প্রশাসন কোন উদ্যোগ না নেওয়ায় তারা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।
এ ব্যাপারে চুনারুঘাট পৌর মেয়র মোঃ নাজিম উদ্দিন শামসু বলেন, নদী দখলমুক্ত করতে হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করা হয়েছে। তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে দিয়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের পাশাপাশি অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কিন্তু নদীটি দখলমুক্ত হয়নি। প্রতিযোগীতা করে দখল নেয়া হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ