1. jubayer.jay@gmail.com : jubayer Ahmed : jubayer Ahmed
  2. admin@sylhetmail24.com : jubayer :
  3. shahabuddin1234@gmail.com : shuhebkhan :
  4. unoskhanrukon@gmail.com : unoskhan :
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:০১ অপরাহ্ন
এক নজরে:

জ্বরের প্রকোপে কাঁপছে সিলেটে

  • প্রকাশিত হয়েছে: রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১১০ বার পড়া হয়েছে

জ্বরের প্রকোপ ব্যাপক হচ্ছে সিলেটে। ভাইরাসজনিত এ জ্বরের (ভাইরাল ফিভার) কবলে কাতরাচ্ছে শিশু থেকে বৃদ্ধ-সকল বয়সের মানুষই। এদিকে, ভাইরাসজনিত এ জ্বর অনেকের ভেতরে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে করোনা। তবে এতে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

স্থানীয় হাতপাতাল সূত্র জানায়, প্রতিদিনই সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে রোগীরা ভর্তি হচ্ছেন ভাইরাল ফিভারে আক্রান্ত হয়ে। তাদের শরীরে সবসময়ই জ্বর থাকছে এক শ’র উপরে। এছাড়াও মাথা ও শরীর ব্যথা রয়েছে শরীরে। অনেকের আবার সার্দি-কাশিও। এবারের ভাইরাসজনিত জ্বর মানুষকে বেশি ভোগাচ্ছে। বিগত বছরগুলোতে দেখা গেছে-ভাইরাস জ্বর ৪-৫ দিনে সেরে গেলেও এবারে রোগীকে বিছানায় ফেলে রাখছে ১০-১২ দিন।

সিলেট রাগিব রাবেয়া হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ জানান, তাপমাত্রার উঠা-নামা, হঠাৎ গরম ও হঠাৎ ঠান্ডা লাগা এবং সর্বোপরি সিজনাল (ঋতু পরিবর্তনজনিত) কারণে দেখা দিয়েছে এ রোগের প্রাদুর্ভাব। এই জ্বর হলে শীত শীত ভাব, মাথা ব্যথা, শরীরে ও গিরায় ব্যথা, খাওয়ায় অরুচি, ক্লান্তি, দুর্বলতা, নাক দিয়ে পানি পড়া, চোখ দিয়ে পানি পড়া, চোখ লাল হওয়া, চুলকানি, কাশি, অস্থিরতা ও ঘুম কম হতে পারে। এছাড়াও শিশুদের টাইপ বি ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের সংক্রমণে পেট ব্যাথা হতে পারে। এ ধরণের রোগীদের প্রচুর পানি পান করা এবং বিশ্রামে থাকার পরামর্শ জরুরী। এছাড়া তিনি বলেন, তাদের হাসপাতালে প্রতিদিন অনেক লোকই ভাইরাল ফিভারে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হচ্ছেন। তাপমাত্রার উঠানামা এবং সিজনাল কারণে এটা হচ্ছে। সাধারণ রোগীদের প্যারাসিটামল, সর্দি থাকলে এন্টি হিস্টামিন খাওয়াতে হবে। তবে বেশি কাশি এবং শ্বাসকষ্টসহ অন্য কোনো ধরণের জটিলতা থাকলে ওই রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা উচিত বলে উল্লেখ করেন ডা: রুহুল।

এদিকে, স্থানীয় একাধিক উপজেলা সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সিলেটের সকল এলাকায় ব্যাপক হারে বাড়ছে ভাইরাস জ্বরের প্রকোপ। প্রতিটা ঘরের কেউ না কেউ আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন এ জ্বরে। আবার অনেক ঘরের একাধিক সদস্য আক্রান্ত। অনেকে এই ভাইরাস জ্বর নিয়ে হাসপাতালমুখি হচ্ছেন না করোনা আতঙ্কে। তারা মনে করছেন, হাসপাতালে গেলেই নানা ধরণের টেস্টসহ অযথা হয়রানী করা হবে রোগীদের। তাই ঘরে বিশ্রাম নিয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করছেন তারা।

ভাইরাস জ্বরের প্রকোপের বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান জানান, ভাইরাস জ্বর একটি সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যা। এতে উদ্বিগ্ন না হয়ে ওষুধ সেবন করতে হবে চিকিৎসকের পরামর্শে।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ
DMCA.com Protection Status