1. jubayer.jay@gmail.com : jubayer Ahmed : jubayer Ahmed
  2. admin@sylhetmail24.com : jubayer :
  3. shahabuddin1234@gmail.com : shuhebkhan :
  4. unoskhanrukon@gmail.com : unoskhan :
বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

হিলিতে পেঁয়াজের দাম কেজিতে বেড়েছে ২০ টাকা

  • প্রকাশিত হয়েছে: মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫২ বার পড়া হয়েছে

ব্যবধানে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে পেঁয়াজের দাম কেজিতে ২০ টাকা বেড়েছে। ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে দাম বাড়িয়েছেন পেঁয়াজ আমদানিকারকরা, এমনটিই বলছেন হিলি বাজারের পাইকারি পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা।

আজ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে হিলি বাজার ঘুরে দেখা যায়, আগের দিন সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৩৫ থেকে ৩৬ টাকা কেজি দরে। তা ৪০ থেকে ৪২ টাকা দামে বাজারে বিক্রি করেছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা। আজ সকালে ছিল ভিন্নচিত্র। পাইকারি বাজারে প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪৮ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে। খুচরা ব্যবসায়ীরা বিক্রি করেছেন ৬০ টাকায়। 

সম্প্রতি ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে অতিবৃষ্টি আর বন্যার কারণে সেই দেশে পেঁয়াজের সরবরাহের ঘাটতি দেখা গেছে। নিজ দেশের বাজার স্বাভাবিক রাখতে সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত সরকার। হিলি কাস্টমসকে রাত ৮টার দিকে চিঠির মাধ্যমে এই সিদ্ধান্ত জানিয়েছে ভারতীয় কাস্টমস। আর সঙ্গে সঙ্গে এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে হিলির পেঁয়াজ বাজারে। 

হিলি বাজারের খুচরা ব্যবসায়ী মিঠু মিয়া রাইজিংবিডিকে বলেন, সোমবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন ৪০ টাকা কেজি দরে, সন্ধ্যায় ৫০ টাকা; আজ সকালে সেই পেঁয়াজ বিক্রি করতে হচ্ছে ৬০ টাকা কেজি দরে। 

হঠাৎ পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির কারণ জানতে চাইলে হিলি বাজারের পাইকারি পেঁয়াজ ব্যবসায়ী রাশেদুল ইসলাম বলেন, ‘আমদানিকারকদের কাছে পেঁয়াজ চাচ্ছি, তারা বলছেন- পেঁয়াজ নেই। আসলে তাদের কাছে আছে, দাম বাড়ায় অপেক্ষায় তারা এমন করছেন। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে ৩৫ থেকে ৩৬ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি করেছি। আজ ৪৮ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি করেছি।’  

হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘পেঁয়াজের আমদানি বন্ধ। আমার কাছে কোনো পেঁয়াজ নেই।’ 

সূত্র : রাইজিংবিডি

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ