1. jubayer.jay@gmail.com : jubayer Ahmed : jubayer Ahmed
  2. admin@sylhetmail24.com : jubayer :
  3. shahabuddin1234@gmail.com : shuhebkhan :
  4. unoskhanrukon@gmail.com : unoskhan :
সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:১৮ অপরাহ্ন

আন্দোলকারীদের যোগ্যতা নিয়ে এ কেমন প্রশ্ন তুললেন সালাউদ্দিন!

  • প্রকাশিত হয়েছে: বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩৯ বার পড়া হয়েছে

দীর্ঘ এক ঘুগ ধরে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতির দায়িত্বে আছেন কাজী সালাউদ্দিন। আগামী ৩ অক্টোবর বাফুফের নির্বাচন। এবার বাফুফে নির্বাচন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফুটবলভক্তরা বেশ সরব। ধীরে ধীরে দেশীয় ফুটবল তলানির দিকে ধাবিত হওয়ায়-ফুটবলকে বাঁচাতে তাদের আকুতি। এ জন্য কাজী সালাউদ্দিনকে সরে যেতে অনুরোধ ফুটবলভক্তদের।

তারা ‘বয়কট সালাউদ্দিন’ হ্যাশট্যাগে ফুটবল বাঁচানোর আন্দোলনে নেমেছে। তার বিরুদ্ধে চলছে ক্যাম্পেইন। ফুটবল প্রেমী হিসেবে ব্যারিস্টার সাইদুল হক সুমন প্রেসক্লাবের সামনে একটি মানববন্ধনও করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের সঙ্গে কথা বলেছেন কাজী সালাউদ্দিন।

তিনি এসময় আন্দোলনকারীদের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। এক প্রশ্নের জবাবে কাজী সালাউদ্দিন বলেন, টিভিতে দেখলাম দাবি উঠেছে, সালাউদ্দিনকে পদত্যাগ করতে হবে। নির্বচনের বাকি মাত্র ১৫ দিন। আপনি কেনো নির্বাচন করতে আসছেন না? আমি তো নির্বাচিত হয়েই এখানে এসেছি। আমি তো আমার নিবার্চন করছি। আপনি নির্বাচনে না এসে আমাকে পদত্যাগ করতে বলছেন। আপনি কে, আপনার যোগ্যতা কী? যদি এমন হতো আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আপনার সাংগঠনিক কোনো বড় অবদান আছে তাও মেনে নিতাম। গণমাধ্যমে এসে গালাগালি করলেন। কিন্তু গণমাধ্যমও তার কথা তুলে ধরছে, যা ভিত্তিহীন। আজকে আমি যদি অর্থমন্ত্রীকে নিয়ে সমালোচনা করি। তাহলে দেখতে হবে অর্থনীতিতে আমার জ্ঞান কতটুকু। যারা আমাকে গালি দিচ্ছে, বলছে পদত্যাগ করতে তাদের যোগ্যতা কী? ফুটবলে আমার ৫০ বছরের অভিজ্ঞতা। খেলোয়াড়, কোচ ও সংগঠক হিসেবে কাজ করছি।

ফেসবুক নিয়ে বিরক্ত বাফুফে সভাপতি বলেন, আমার ফেসবুক আইডি নেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারও করি না। এই বিষয়ে আমার জ্ঞান খুব কম। আমি যেটা জানি, আমাকে অনেকে গালিগালাজ করে। এক হাজার লোক আমাকে গালি দেয়ার পাশাপাশি নামটা ভুল লিখেছে। কাজী সালাউদ্দিন আহমেদ লিখেছে। নামতো একজন ভুল করতে পারে। কিন্তু এক সঙ্গে হাজার মানুষ একইভাবে নাম ভুল করছে। অর্থাৎ একটি পক্ষই এসব নিয়ন্ত্রণ করছে। তাই আমি বলি এসব ভুল তথ্য। আমার প্রতিপক্ষ শুরু করেছে।

তার সময়ে ফুটবলে ব্যাপক উন্নতি হয়েছে বলে দাবি করে সালাউদ্দিন বলেন, আমি কোনও চমক দেখাতে আসিনি। ১২ বছর ধরে ১১টা লিগ হয়েছে। খেলোয়াড়রা এখন দামি গাড়ী চালায়। আগে ১/২ লাখ টাকা পেতো। এখন ৬০/৭০ লাখ টাকা পায়। আমার নিয়ত হচ্ছে লিগের যে মান সেটাকে দিনের পর দিন আরও বড় করে তোলা।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ